জুনিয়ার এসইও প্রফেশনাল টাস্ক লিস্ট এবং ফ্রি এসইও অনলাইন কোর্স ও সাপোর্ট

আর্টিকেল পড়ার নিয়মাবলী

বিশ্বাস করেন, আর নাই করেন। অনলাইনে আপনি যদি কোন একটা কাজে পারদর্শী হয়ে শুরু করতে পারেন, তাহলে সফল হওয়া খুব সোজা। কিন্তু, আপনি যদি পারদর্শী না হয়ে কাজ করা শুরু করেন, তাহলে সম্পূর্ণ পরিশ্রম এবং সময়টাই নষ্ট।

এই কাজ কে আপনি ঠিক পরীক্ষা দেয়ার সাথে তুলনা করতে পারেন। আপনার প্রস্তুতি যদি ভাল থাকে, তাহলে পরীক্ষা ভাল হবে এইটা স্বাভাবিক অন্যথায় পরীক্ষার সম্পূর্ণ সময়টাই নষ্ট।

পরীক্ষায় ভাল করার জন্য যেমন নিয়মিত লেখাপড়া করা দরকার, এই খানেইও তার ব্যাতিক্রম না। তবে, এই খানে গতানুগতিক মুখস্থ বিদ্যার কোন দাম নেই। আপনার আসে পাসে হয়ত অনেক বন্ধু আছে যারা জ্যামিতি মুখস্থ করে পরীক্ষা দিয়ে থাকে। তার ফলাফল যে কোন ভাবেই সুখকর না, এইটা বুঝতে বেশি সময় লাগে না।

আপনি খুব সহজেই অনলাইনের যে কোন কাজে খুব ভাল সাফল্য অর্জন করতে পারবেন এর জন্য দরকার তিনটা গুনঃ

  • ইংরেজিতে ভাল দক্ষতা
  • গণিত দেখলে ভয়ে দৌড় মারেন না
  • পরিশ্রম করার মানসিকতা

ইংরেজিতে ভাল দক্ষতা কি জন্য লাগবে, এ কথা আলোচনা করে সময় নষ্ট করার কোন যুক্তি নেই। এখন হয়ত আপনার মনেহতে পারে “আমাকে কি জন্য গণিতের ভয় দূর করতে হবে?” আসলে যদি আপনার গণিতের ভয় না থাকে, তাহলে যে কোন কাজ আপনার বুঝতে সুবিধা হবে। কারণ, অনলাইনের প্রত্যেকটা কাজ চলে লজিকের উপর। আপনি জত ভাল লজিক বোঝেন, তত আপনার জন্য সুবিধা।

তবে ভয় পাওয়ার কোন কারণ নেই, আপনাকে লজিকে ভাল হওয়ার জন্য অবশ্যই গণিতের উপর পিএইচডি করে আসা লাগবে না। আমার মনেহয়, এই আর্টিকেল যারা পড়ছেন তারা অন্তত মাধ্যমিকের গণ্ডি পার করে আসছেন। যদি তাই হয়, তাহলে একটা কাজ করেন – ক্লাস ফাইভ থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত ইংরেজি এবং গণিত বইটা আর একবার ভালেভাবে শেষ করে আসেন।

এখন আপনার জন্য কোর্স লিস্টঃ

এখন আপনি অনলাইনে কাজ করার জন্য প্রস্তুত। আপনি যে কোন ক্যাটাগরির কাজ এখন শিখতে পারেন।

ইবিটের ওয়েব ডিজাইন টিউটোরিয়াল দিয়ে শুরু করতে পারেন।

প্রিতিদিন যত টুকু শিখছেন, তারপর একটা করে আর্টিকেল লিখে পোস্ট করা শুরু করেন। কিন্তু কথা হল, পোস্ট করবেন কই? এর জন্য ব্লগস্পট বা ওয়ার্ডপ্রেসে একটা ফ্রী ওয়েবসাইট খুলে ফেলেন।

আর ঐ ভিডিও গুল দেখে শেষ করা মানেই কিন্তু, আপনার কাজ শেষ হয়ে গেল না। এইখানে আপনি কোন কোন ব্লগ গুল ফলো করতে পারেন, তার একটা কমপ্লিট লিস্ট আছে। ভিডিও গুল দেখার পাশাপাশি ব্লগের আর্টিকেল গুল পড়া শুরু করেন। আর গুগল ওয়েবমাস্টারের টুলস এবং গাইডলাইন দেখতে ভুলবেন না।

উপরের কোন জায়গায় অথবা কোর্সের কোন জায়গায় যদি আপনার বুঝতে অসুবিধা হয় তাহলে, আপনি আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আমাদের কাছ থেকে সাহায্য পাওয়ার শর্ত ৪টাঃ

  • ছোট বেলায় রচনা লেখার কথা মনে আছে? আপনি হয়ত জিবনে অনেক কিসুর উপর রচনা লিখছেন, কিন্তু মানুষের উপর কোনদিন রচনা লেখেন নাই। তাই আপনার এই বারের রচনার টপিক “মানুষ”।
  • আর পরিবারের প্রত্যেক সদস্যর জন্য একটা করে ফলের এবং ঔষধি গাছ লাগান। আমি ধরে নিলাম, আপনার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৪ জন। তাহলে আপনার জন্য গাছের লিস্ট হতেপারে এ রকম- আম, কাঁঠাল, আমলকী, হরিতকী। প্রত্যেকটা গাছ লাগানোর পর সেলফি তুলে আপনার ফেসবুক প্রফাইলে আপলোড করে দেন। শুধু লাগালেই হবেনা, নিয়মিত তার যত্ন নিতে হবে।
  • অবশ্যই যে কোন ধরনের প্রশ্ন যতদূর সমভাব বাংলা ভাষার নিজেস্ব বর্ণমালা এবং শব্দ ব্যাবহার করে লিখবেন।
  • কোন ধরনের খেজুরে আলাপ টাইপের প্রশ্ন থেকে নিজেকে দূরে রাখেন।

রচনাটা লেখা হয়ে গেলে, এই খানে মেইল করেন (biddrupkumarmallick@gmail.com) এবং সাথে আপনার ফেসবুক প্রফাইলের লিঙ্ক যেখানে আপনি ছবি গুলা আপলোড করছেন।

এরপর, ফিরতি মেইলে আপনাকে জানিয়ে দেয়া হবে আপনাকে আমারা এই ফ্রী সার্ভিসের আওতায় রাখছি কিনা?

ফ্রী সার্ভিসের সুবিধাঃ

  • এসইও এবং ওয়েব ডিজাইনের উপর ডিভিডি ভিডিও সিরিজ এবং সাপোর্ট পাবেন সম্পূর্ণ ফ্রিতে।
  • কোর্সের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রত্যেকটা কাজের রিভিউ এবং কমেন্ট

এই সামান্য কাজ টুকু করার উদ্দ্যেশ্য একটাই। যখন মার্কেট প্লেসের কোন প্রজেক্টে লেখা থাকে বাংলাদেশীদের বিড করার দরকার নাই। তখন, মনেহয় লজ্জায় মাটির সাথে মিশে যাই। সেই দিনের স্বপ্ন দেখি যেদিন প্রোজেক্টের উপরে লেখা থাকবে শুধু মাত্র বাংলাদেশীরাই বিড করতে পারবে বাকিরা বীড করা থেকে দূরে থাকেন।

নোটঃ

  • দরকার হলে লিস্টে সংযোযন অথবা বিয়যোন হতে পারে।
  • কোর্স চলাকালীন সময়ে আপনি কোন ভাবেই অনিয়মিত হতে পারেবন না।
  • কোর্স শেষ আপনার সেই লাগান গাছ গুলর সাথে ছবি তুলে আপনার ফেসবুকে আবার আপলোড করা লাগবে।
  • আপনার যদি অযুহাত দেখানর অভ্যাস থাকে, তাহলে কোর্সে যোগদান না করাই ভাল।

9 thoughts on “জুনিয়ার এসইও প্রফেশনাল টাস্ক লিস্ট এবং ফ্রি এসইও অনলাইন কোর্স ও সাপোর্ট”

  1. Biddrup vai,Really you are genius.I always read your all topics ,but specially following your SEO related articals.
    Anyway,I am very much eager to join this SEO online course.if you give me this chance.

    Thanks again for arrangement such a great program.

    1. সব গুল পোস্ট পড়ছেন এবং ভাল লেগেছে জেনে ভাল লাগল। আর আপনি অবশ্যই কোর্সটা করতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে নিয়ম অনুযায়ী ৪টা শর্ত পূরণ করত হবে। আপনার মেইলের অপেক্ষায় রইলাম।

      ভাল থাকবেন।

      আপনার জন্য শুভ কামনা রইল। 🙂

      1. Thanks Biddup vai for your comments.Really I start my day with reading your blog .that’s are very useful for beginners .I am very much eager to know about your four conditions .Please let me know that .

        Thanks
        Your obedient Student

        1. ছোট বেলায় রচনা লেখার কথা মনে আছে? আপনি হয়ত জিবনে অনেক কিসুর উপর রচনা লিখছেন, কিন্তু মানুষের উপর কোনদিন রচনা লেখেন নাই। তাই আপনার এই বারের রচনার টপিক “মানুষ”।
          আর পরিবারের প্রত্যেক সদস্যর জন্য একটা করে ফলের এবং ঔষধি গাছ লাগান। আমি ধরে নিলাম, আপনার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৪ জন। তাহলে আপনার জন্য গাছের লিস্ট হতেপারে এ রকম- আম, কাঁঠাল, আমলকী, হরিতকী। প্রত্যেকটা গাছ লাগানোর পর সেলফি তুলে আপনার ফেসবুক প্রফাইলে আপলোড করে দেন। শুধু লাগালেই হবেনা, নিয়মিত তার যত্ন নিতে হবে।
          অবশ্যই যে কোন ধরনের প্রশ্ন যতদূর সমভাব বাংলা ভাষার নিজেস্ব বর্ণমালা এবং শব্দ ব্যাবহার করে লিখবেন।

          রচনাটা লেখা হয়ে গেলে, এই খানে মেইল করেন (biddrupkumarmallick@gmail.com) এবং সাথে আপনার ফেসবুক প্রফাইলের লিঙ্ক যেখানে আপনি ছবি গুলা আপলোড করছেন।:-)

    2. আর্টিকেল গুল নিয়মিত পড়েন জেনে ভাল লাগল। নিয়ম অনুযায়ী পরবর্তী কাজ গুলা শেষ করেন। আপনার মেইলের অপেক্ষায় রইলাম। 🙂

  2. It is very hard to write an essay on human being!!!!!
    I am agree with another 3 conditions.

    Thanks and may you live long

    1. কোর্স শেষ করার পর আপনি যদি লিখতে রাজি থাকেন, তাহলে আমরা রাজি যেহেতু আপনার শেখার আগ্রহ ভীষণ।

        1. আহমদে স্যার, মাঝে কিছু দিন নিয়মিত লেখালিখি করতে পারি নাই। আর আপনাদের আশীর্বাদে ভাল আছে। আবার লেখা শুরু করব। এখন থেকে নিয়মিত লেখা পাবেন। 🙂

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *